সারা বিশ্বের কাছে শ্রেষ্ঠ হৃদয়বান ব্যাক্তি হিসেবে পরিচিত লাভ করলেন ইমরান খান

ঢাকা: পাকিস্তানে আটক ভারতীয় বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে পাঞ্জাবের ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে হস্তান্তর করা হবে।

শুক্রবার (০১ মার্চ) পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছে বলে জানায় ভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানায়, বিকেল ৩টা থেকে ৪টার মধ্যে পাঞ্জাবের ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে অভিনন্দনকে ভারতীয় কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এদিকে ছেলেকে ফিরিয়ে আনতে চেন্নাই থেকে প্লেনে দিল্লি পৌঁছেছেন অভিনন্দনের বাবা ভারতীয় বিমানবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা চিকিৎসক শোভা বর্তমান। সেখান রওনা দেন অমৃতসরের উদ্দেশে।

এনডিটিভি বলছে, পাকিস্তানে আটক অভিনন্দনের দাদাও একজন পাইলট ছিলেন; যিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিয়েছেন।

এদিকে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন (অব.) অমরিন্দর সিং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে তার টুইটারে লিখেন, আমি পাঞ্জাব সীমান্তের দিকে যাচ্ছি। এখন আছি অমৃতসরে। পাকিস্তান অভিনন্দন বর্তমানকে ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে মুক্তি দেবে। তাকে গ্রহণ করা হবে আমার জন্যে সম্মানের।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় ভারতের বিশেষায়িত নিরাপত্তা বাহিনী সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) গাড়িবহরে হামলা চালানো হয়।

এরপর জঙ্গিদের মদদ দেয়ার জন্য ইসলামাবাদকে অভিযুক্ত করে এর মোক্ষম জবাব দিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে পাকিস্তানের বালাকোট শহরে জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদের প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে হামলা চালায় ভারতীয় বিমান বাহিনী।

হামলায় প্রায় ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি করে ভারত। এর একদিন পরই অর্থাৎ বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ভারতের দু’টি যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত ও পাইলট উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে আটক করার দাবি করে পাকিস্তান।

এরপর ভারত তাদের পাইলটকে ফেরত চেয়ে দিল্লিতে নিযুক্ত দেশটির হাইকমিশনারকে ডেকে পাঠিয়েছে। এর মাঝেই বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ঘোষণা দেন, ‘শান্তির স্বার্থে’ শুক্রবার অভিনন্দনকে মুক্তি দেয়া হবে।

তবে ভারতীয় মিডিয়া দাবি করছে, বৈশ্বিক চাপে এবং জেনেভা কনভেনশনের কারণেই পাইলটকে মুক্তি দিতে বাধ্য হচ্ছে পাকিস্তান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: