নরেন্দ্র মোদির প্রার্থীপদ বাতিল হওয়া উচিত, দাবি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

বিজেপির মতো তৃণমূল চোর নয়। টাকা দিয়ে দল ভাঙানোর চেষ্টা করছেন মোদি। হুগলির ভদ্রেশ্বরের জনসভা থেকে ফের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সাফ কথা, ‘প্রধানমন্ত্রী নির্লজ্জ, কোনও আইন মানছেন না। তাঁর প্রার্থীপদ বাতিল হওয়া উচিত।’

এবারের লোকসভা ভোটে বাংলায় সম্মুখসমরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনীতির লড়াইয়ে কেউ কাউকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ। মঙ্গলবার যখন রাজ্যের আটটি লোকসভা আসনে ভোটগ্রহণ চলছে, তখন হুগলির শ্রীরামপুরে দলের প্রার্থীর সমর্থনে জনসভা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জনসভা থেকে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে মমতাকে যেমন আক্রমণ করেন, তেমন রাজ্যে রাজনৈতিক সমীকরণ নিয়ে বিস্ফোরক দাবি করেন মোদি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে তো বটেই, ২৩ মে এ রাজ্যেও গেরুয়া ঝড় বইবে। বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে ৪০ জন তৃণমূল বিধায়ক। লোকসভা ভোটের ফল বেরোলেই তাঁরা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাবেন।’ প্রকাশ্য জনসভায় খোদ প্রধানমন্ত্রীর এমন মন্তব্যে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে যায়। দল ভাঙানোর অভিযোগে মোদির বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করেছে তৃণমূল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: